Connect with us

North East

ফুলেরতল পাবলিক হাইস্কুলের রৌপ্য জয়ন্তী উদযাপন

Published

on

বাপ্পন দাস, যুব দর্পণ প্রতিনিধি, লক্ষিপুর,১৫ ফেব্রুয়ারি :: ১৯৯৬ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি তারিখে তৎকালীন কাছাড় জেলার উপ জেলা শাসক তথা লক্ষ্মীপুরের ভারপ্রাপ্ত মহকুমাধিপতি মানস কান্তি ভট্টাচার্যের পৌরহিত্যে অনুষ্ঠিত এক সভায় কাছাড় জেলার তৎকালীন বিদ্যালয় সমূহের পরিদর্শক নূপুর শর্মা কর্তৃক উদ্বোধন হ‌ওয়া অপ্রাদেশিকৃত ফুলেরতল পাবলিক হাইস্কুলের ২৫ বছর পূর্ণ হলো গত ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ইং। এ উপলক্ষে স্কুলের প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্যোগে গঠিত রৌপ জয়ন্তী উদযাপন সমিতি কর্তৃক আয়োজিত তিন দিন ব্যাপী রৌপ্য জয়ন্তী অনুষ্ঠানমালার গতকাল ১৪ই ফেব্রুয়ারি ছিল অন্তিম দিন, গত ৮ ফেব্রুয়ারি স্থাপনা দিবসে ছিল পতাকা উত্তোলন, শোভাযাত্রা , আলোচনা সভা, পতাকা উত্তোলন করেন রৌপ্য জয়ন্তী উদযাপন সমিতির সভাপতি প্রদীপ কুমার দে , গত ১৩ ফেব্রুয়ারি শনিবার সারা দিন ব্যাপী অনুষ্ঠিত হয় প্রতিযোগিতা মূলক বিভিন্ন ধরনের খেলাধুলা ও ক্যুইজ , ১৪ই ফেব্রুয়ারি রবিবার ছিল রৌপ জয়ন্তী উদযাপনের অন্তিম দিন। সকাল ১০টায় অঙ্কন প্রতিযোগিতা, সকাল ১১ টায় স্কুলের প্রয়াত শিক্ষক ঁতাপস চন্দ্র দাস স্মৃতি মঞ্চে সমিতির সভাপতি প্রদীপ কুমার দে-র সভাপতিত্বে শুরু হয় প্রকাশ্য অধিবেশন।

মুখ্য অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ তথা নেহরু হাইয়ার সেকেন্ডারী স্কুলের অধ্যক্ষ সমর কান্তি রায়চৌধুরী , সম্মানিত অতিথি হিসেবে ছিলেন জগাই মথুরা হাইস্কুলের অবসরপ্রাপ্ত প্রধানশিক্ষক দূর্গা কান্ত পান্ডে, ইউনিয়ন হাইস্কুলের অবসরপ্রাপ্ত প্রধানশিক্ষক জগবন্ধু দাস, কাছাড় জেলার বিদ্যালয় সমূহের পরিদর্শক প্রতিনিধি বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য ও অভিজিৎ বিশ্বাস, সমাজ সেবী আবিন্দ্র দাস,দ্বিপেন্দ্র চন্দ্র দাস, মুকেশ পান্ডে, থৈবা সিংহ প্রমূখ। উপস্থিত ছিলেন সমিতির পক্ষ থেকে উনাদের বরণ করার পর প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করেন মুখ্য অতিথি সমর কান্তি রায়চৌধুরী , যুগ পুরুষ স্বামী বিবেকানন্দের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণের পর রৌপ্য জয়ন্তী স্মৃতি স্মারক উন্মোচন করা হয়। এরপর অঙ্কন প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন দূর্গা কান্ত পান্ডে। অতঃপর সঙ্গীতা পালের উদ্বোধনী নৃত্যের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। স্বাগত বক্তব্য রাখেন রৌপ্য জয়ন্তী উদযাপন সমিতির সম্পাদক স্কুলের প্রাক্তন ছাত্র কমলেশ রায়, এই অপ্রাদেশিকৃত স্কুলের শুরু সহ পঁচিশ বছরের ইতিহাস তুলে ধরেন উক্ত স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য, রৌপ্য জয়ন্তী উদযাপন সমিতির সহ-সভাপতি তথা জগাই মথুরা হাইস্কুলের প্রধানশিক্ষক শিল্পজিৎ পাল, বক্তব্য রাখেন জগবন্ধু দাস, দূর্গা কান্ত পান্ডে, থৈবা সিংহ, মুকেশ পান্ডে, বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য, স্কুলের প্রধানশিক্ষিকা রহিমা খাতুন, সমর কান্তি রায়চৌধুরী, প্রদীপ কুমার দে প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন স্কুলের প্রাক্তন দুই প্রধানশিক্ষক মানিক পাল ও পিন্টু দাস সহ প্রাক্তন শিক্ষক-শিক্ষিকাগন। অনুষ্ঠানে রৌপ্য জয়ন্তী উদযাপন সমিতির পক্ষে প্রাক্তন ছাত্রী অনুশ্রী পালের সম্পাদনায় তৈরী স্মরণিকা উন্মোচন করেন মুখ্য অতিথি মহোদয়। প্রত্যেক বক্তাই প্রয়োজনের তাগিদে গড়ে উঠা এই অপ্রাদেশিকৃত স্কুলটির প্রয়োজনীয় পরিকাঠামো থাকা, প্রচুর ছাত্রছাত্রী থাকা, ভালো ফলাফল থাকা, সরকারি অনুদান পাওয়া স্বত্বেও সরকারের ভুল নীতির জন্য প্রাদেশিকরণের আওতায় নিয়ে না আসায় সবাই বিষ্ময় প্রকাশ করে অতি সত্ত্বর প্রাদেশিকরণ করতে এই মঞ্চ থেকে সরকারেরর নিকট আবেদন রাখা হয় তথা প্রতিনিধি মাধ্যমে কাছাড় জেলার বিদ্যালয় সমূহের পরিদর্শকের অনুরোধ করা হয় যে এব্যাপারে বিহিত ব্যবস্থা নিতে। অনুষ্ঠানে সমিতির পক্ষ থেকে প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষক – শিক্ষিকাগনকে সম্মাননা স্মারক দিয়ে পঁচিশ বছরের ত্যাগ ও সেবামূলক শিক্ষা দানের স্বীকৃতি দেওয়া হয়। স্বীকৃতি দেওয়া হয় স্কুলের কৃতি ছাত্র-ছাত্রীদের‌ও। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন স্কুলের সহ-শিক্ষক সুধাংশু মালাকার। মধ্যাহ্ন বিরতির পর অন্য এক অনুষ্ঠানে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ী ছাত্র-ছাত্রীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়। ছিল বিভিন্ন ভাষাভাষীদের অনুষ্ঠান – বাংলা, মনিপুরী, নেপালী, অসমিয়া, রংমাই , হিন্দি, ভোজপুরি ভাষার নৃত্য ও সঙ্গীত। সান্ধ্যকালীন অনুষ্ঠানে ছিলেন লোকশিল্পী বিধান লস্কর ও তাঁর দল।

Continue Reading

North East

সাংবাদিক সুবীর দত্তের পিতৃ বিয়োগ

Published

on

যুব দর্পণ প্রতিনিধি, ২৪ জুন, শিলচর :: বিশিষ্ট সাংবাদিক সুবীর দত্তের পিতা সুকুমার দত্ত আজ সকালে ত্রিপুরার কৈলাসহর সরকারী জেলা হাসপাতালে শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। গত দুই দিন থেকে হৃদরোগ জনিত কারণে উনাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল । উল্লেখ্য যে, প্রয়াত সুকুমার দত্তের জন্ম ২৯ সেপ্টেম্বর ১৯৩১ সালে। মুরারি চাঁদ কলেজ থেকে আই এস সি পাশ করে।, পরবর্তী সময়ে কোলকাতার বঙ্গবাসী কলেজ থেকে বি এস সি পাশ করে অটোমোবাইল ও রেডিও টেকনিশিয়ান এ ডিপ্লোমা কোর্স করেছেন জর্জ টেলিগ্রাফ কোলকাতা থেকে। তারপর ১৯৬৫ সালে ত্রিপুরা রাজ্যে এসে ICAT ডিপার্টমেন্টে চাকরিতে যোগদান করে ১৯৯১সালে অবসর গ্রহণ করেছেন।
উনি রেখে গেছেন স্ত্রী এক ছেলে ,এক মেয়ে , পুত্রবধূ সহ অসংখ্য শুভাকাঙ্ক্ষী

Continue Reading

Barak Valley

শিলচরে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করলো গৈরিক ভারত

Published

on

যুব দর্পণ প্রতিবেদন, ১৫ জুন ২০২১ ইং, শিলচর :: করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ও কার্ফুর ফলে অনেক মধ্যবিত্ত পরিবারের আর্থিক অবস্তা শোচনীয় , এই কঠিন পরিস্থিতিতে শিলচরের মালুগ্রামে আবারও ত্রাণ বিতরণ করল সেচ্ছাসেবী সংগঠন ” গৈরিক ভারত ” । আজ মঙ্গলবার করোনায় আক্রান্ত বৃহত্তর মালুগ্রামের বিভিন্ন অঞ্চলে গৈরিক ভারতের শিলচর নগর সভাপতি কানাই দেবনাথের ব্যবস্থাপনায় ও সংগঠনের বরাক উপত্যকার কার্যকরি সভাপতি সুমিত রঞ্জন দাস, কাছাড় জেলার কার্যকরি সভাপতি টুটুল ভট্টাচার্য ও শিলচর নগর সাধারণ সম্পাদক সঞ্জীব নাথের বিশেষ উদ্যোগে , করোনার এই দুঃসময়ে চাউল,আলু, ভোজ্য তেল, সোয়াবিন, বিস্কুট, সহ বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রী বন্টন করা হয়। সম্পূর্ণ সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে, অত্যন্ত সুশৃংখলভাবে এই খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কর্মসূচি পালন করা হয়।এদিনের ত্রাণ বন্টন কর্মসূচি চলাকালীন সময়ে গৈরিক ভারতের পক্ষে কাছাড় জেলার কার্যকরি সভাপতি টুটুল ভট্টাচার্য, শিলচর নগর সভাপতি কানাই দেবনাথ, সদস্যা সুপ্তা ধর বলেন, এই সেবা কাজের মাধ্যমে যারা ত্রাণ সামগ্রী সংগ্রহ করেছেন তাদের কাছে গৈরিক ভারত কৃতজ্ঞ। যারা ত্রাণ সামগ্রী সংগ্রহ করেছেন তারা এই ত্রাণ সামগ্রী সংগ্রহ করে, পুণ্য অর্জনের সুযোগ করে দেওয়ার জন্য গৈরিক ভারতের কর্মকর্তারা তাদের কৃতজ্ঞতা জানান। আজকের এই ত্রাণ সামগ্রী বিতরণের সময় কাছাড় জেলার কার্যকরি সভাপতি টুটুল ভট্টাচার্য,শিলচর নগর সভাপতি কানাই দেবনাথ, শিলচর নগর সাধারণ সম্পাদক সঞ্জীব নাথ, বিপ্লব রায়, সুদীপ রবিদাস, গোবিন্দ সিং, সুপ্তা ধর সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

Continue Reading

North East

SPARKS MRS ASSAM শিরোপা অর্জন করলেন শিলচরের ঝনকা ঘোষ পাল

Published

on

যুব দর্পণ সাংস্কৃতিক প্রতিনিধি, ২৪ ফেব্রুয়ারি, শিলচর :: উত্তর পূর্বাঞ্চলের অন্যতম জনপ্রিয় ফ্যাশন শো ও প্রতিযোগিতা ” SPARK ” Miss, Mrs & Mr Assam এর MRS ASSAM এর শিরোপা অর্জন করলেন শিলচরের গৃহবধূ শ্রীমতি ঝানকা ঘোষ পাল।

স্পার্ক এর উদ্যোগে উত্তর পূর্বাঞ্চল সহ কলকাতা, দিল্লী সহ বিভিন্ন স্হানের কয়েক শতাধিক প্রতিযোগিদের অডিশনের মাধ্যম নির্বাচিত করে ১১ টি জোনে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয় এবং এই ১১ জন জোনের চ্যাম্পিয়নদের নিয়ে গত ১২ ফেব্রুয়ারি আই টি এ মাছখোয়াতে অনুষ্ঠিত হয় প্রতিযোগিতার মেগা ফাইনাল ।

উক্ত প্রতিযোগিতায় বরাক উপত্যকা জোন থেকে জয়ী হয়ে মেগা ফাইনালে নিজের দক্ষতা ও প্রতিভার স্বাক্ষর রেখে Mrs Assam এর শিরোপার সস্মান অর্জন করেন শিলচরের তরুণ নৃত্যশিল্পী ঝনকা ঘোষ পাল । Mrs Assam শিরোপা অর্জন করে শিলচরের সস্মান বাড়ানোর জন্য শ্রীমতি ঝনকা ঘোষ পাল কে বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন, বিশিষ্ট জনেরা উনার উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

Continue Reading

Trending