Connect with us

North East

ঘূর্ণিঝড়ের নামকরণের সবিশেষ ও সাম্প্রতিক ‘উম-পুন’ ঝড় সম্পর্কে একটি বিশেষ পোষ্ট

Published

on

কয়েক বছর আগে তৈরি হওয়া ঝড়ের তালিকার এটাই শেষ ঝড়।
‘আম্ফান’ (‘UM-PUN’)-এর আগে যে ঘূর্ণিঝড়টির সম্মুখীন হয়েছি আম’রা, সেটির নাম ‘ফণী’। এই ঝড়ের নাম দিয়েছিল বাংলাদেশ, যার অর্থ হল সাপ। কী’ভাবে নামকরণ করা হয় এই ঘূর্ণিঝড়গু’লির? আম্ফান (‘UM-PUN’)-র পরবর্তী ঝড়গু’লির নাম কী’? আসুন জেনে নেওয়া যাক এই সব খুঁটিনাটি প্রশ্নের উত্তর। বিশ্বজুড়ে প্রতিটি সমুদ্র অববাহিকায় যে ঘূর্ণিঝড়গু’লি তৈরি হয়, আঞ্চলিক ভাবে বিশেষায়িত আবহাওয়া কেন্দ্র এবং ক্রান্তীয় ঘূর্ণিঝড়ের সতর্কতা কেন্দ্রগু’লির দ্বারা সেগু’লির নামকরণ করা হয়।
IMG_20200522_224547
ওয়ার্ল্ড মেটিরিওলজিকাল অর্গানাইজেশন, ইউনাইটেড নেশন্স ইকোনমিক অ্যান্ড সোশ্যাল কমিশন ফর এশিয়া এবং প্রশান্ত মহাসাগর বা ডব্লিউএমও ইস্কাপের তালিকাভূক্ত দেশগু’লি বিভিন্ন ঝড়ের নাম প্রস্তাব করে। এই তালিকায় রয়েছে ভা’রত, বাংলাদেশ, মায়ানমা’র, পা’কিস্তান, মালদ্বীপ, ওমান, শ্রীলঙ্কা এবং থাইল্যান্ডের নাম। এই অঞ্চলে উদ্ভুত ঘূর্ণিঝড়ের নামকরণ করে এই দেশগু’লিই।
IMG_20200522_224514
২০১৮ সালে তালিকায় আরও পাঁচটি দেশকে যু’ক্ত করা হয়েছে। এই পাঁচটি দেশ হল ই’রান, কাতার, সৌদি আরব, সংযু’ক্ত আরব আমিরশাহী আর ইয়েমেন। এপ্রিলে প্রকাশিত নতুন তালিকায় ঘূর্ণিঝড়ের ১৬৯টি নাম রয়েছে। তালিকার ১৩টি দেশের থেকে ১৩টি প্রস্তাবিত নাম রয়েছে এখানে।

প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরোর প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী আম্ফানেরর পরবর্তী ঘূর্ণিঝড়গু’লির নাম হল, নিসর্গ (বাংলাদেশের প্রস্তাবিত), গতি (ভা’রতের প্রস্তাবিত), নিভা’র (ই’রানের প্রস্তাবিত), বুরেভি (মালদ্বীপ প্রস্তাবিত), তৌকতাই (মায়ানমা’রের প্রস্তাবিত নাম) এবং ইয়াস (ওমান প্রস্তাবিত)।

ভারতের দেওয়া ১৩টি নাম – গতি, তেজ, মুরাসু, আগ, ব্যোম, ঝড়, প্রবাহ, নীর, প্রভঞ্জন, ঘূর্ণি, অম্বুদ, জলধি এবং বেগ।

ঝড়ের নাম বেছে নেওয়ার ক্ষেত্রে ‘প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরো’র কতগু’লি নির্দিষ্ট শর্ত মেনে চলা হয়। শর্তগু’লি হল-

১) ঝড়ের নামটি কোনও রকম লি’ঙ্গ, রাজনীতি, ধ’র্ম এবং সংস্কৃতি নিরপেক্ষ হওয়া চাই।

২) ঝড়ের নামটি যেন কোনও ভাবেই কোনও অনুভূতিতে আ’ঘাত না করে।

(৩) নামগুলি যেন অভব্য, নির্মম বা অবমাননাকর না হয় ।

(৪) নামগুলি যেন ছোট হয় এবং সহজে উচ্চারণ করা যায় ।

(৫) নামগুলির ইংরেজি বানান যেন হয় সর্বাধিক ৮টি অক্ষরবিশিষ্ট ।

‘উম-পুন’ নামকরণ করল কে? এই শব্দের মানেই বা কী?

ভারত, বাংলাদেশ, মায়ানমার, পাকিস্তান, মালদ্বীপ, ওমান, শ্রীলঙ্কা, থাইল্যান্ড – ২০০৪ সালে এই ৮টি দেশ প্রত্যেকে ৮টি করে নাম দেয়। নামকরণ হয়েছিল মোট ৬৪টি ঘূর্ণিঝড়ের। সেই তালিকার সর্বশেষ নাম ‘উম-পুন’। নামটি দিয়েছিল থাইল্যান্ড। ‘উম-পুন’ মানে আকাশ। ১৬ বছর পর সেই ঘূর্ণিঝড় এখন কয়েক কোটি মানুষের ত্রাসের কারণ।

আবহবিদরা জানাচ্ছেন, সাধারণ মানুষের সুবিধার জন্য ঘূর্ণিঝড়ের নামকরণের সূত্রপাত হয়। ঘূর্ণিঝড়ের নাম থাকলে সাধারণ মানুষ ও সংবাদমাধ্যম তাকে চিহ্নিত করতে সুবিধা হয়। তাছাড়া কখনো একসঙ্গে একাধিক ঘূর্ণিঝড়ের সৃষ্টি হতে পারে। তখনও নামকরণের ফলে ঝড়কে চিহ্নিত করতে সুবিধা হয়। গোটা বিশ্বে ১১টি সংস্থা ঝড়ের নামকরণ করে থাকে। কোনও মহাসাগর সংলগ্ন দেশগুলিকে নিয়ে তৈরি একটি সংগঠন এর নামকরণ করে।

সাম্প্রতিক কালে পশ্চিমবঙ্গে ঘূর্ণিঝড় ‘উম-পুন’-এর বিধ্বংসী থাবার কিছু ছবি…

তথ্যসূত্র : Khobor -24.Com ও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম থেকে সংগৃহীত ।

Continue Reading

North East

সাংবাদিক সুবীর দত্তের পিতৃ বিয়োগ

Published

on

যুব দর্পণ প্রতিনিধি, ২৪ জুন, শিলচর :: বিশিষ্ট সাংবাদিক সুবীর দত্তের পিতা সুকুমার দত্ত আজ সকালে ত্রিপুরার কৈলাসহর সরকারী জেলা হাসপাতালে শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। গত দুই দিন থেকে হৃদরোগ জনিত কারণে উনাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল । উল্লেখ্য যে, প্রয়াত সুকুমার দত্তের জন্ম ২৯ সেপ্টেম্বর ১৯৩১ সালে। মুরারি চাঁদ কলেজ থেকে আই এস সি পাশ করে।, পরবর্তী সময়ে কোলকাতার বঙ্গবাসী কলেজ থেকে বি এস সি পাশ করে অটোমোবাইল ও রেডিও টেকনিশিয়ান এ ডিপ্লোমা কোর্স করেছেন জর্জ টেলিগ্রাফ কোলকাতা থেকে। তারপর ১৯৬৫ সালে ত্রিপুরা রাজ্যে এসে ICAT ডিপার্টমেন্টে চাকরিতে যোগদান করে ১৯৯১সালে অবসর গ্রহণ করেছেন।
উনি রেখে গেছেন স্ত্রী এক ছেলে ,এক মেয়ে , পুত্রবধূ সহ অসংখ্য শুভাকাঙ্ক্ষী

Continue Reading

Barak Valley

শিলচরে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করলো গৈরিক ভারত

Published

on

যুব দর্পণ প্রতিবেদন, ১৫ জুন ২০২১ ইং, শিলচর :: করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ও কার্ফুর ফলে অনেক মধ্যবিত্ত পরিবারের আর্থিক অবস্তা শোচনীয় , এই কঠিন পরিস্থিতিতে শিলচরের মালুগ্রামে আবারও ত্রাণ বিতরণ করল সেচ্ছাসেবী সংগঠন ” গৈরিক ভারত ” । আজ মঙ্গলবার করোনায় আক্রান্ত বৃহত্তর মালুগ্রামের বিভিন্ন অঞ্চলে গৈরিক ভারতের শিলচর নগর সভাপতি কানাই দেবনাথের ব্যবস্থাপনায় ও সংগঠনের বরাক উপত্যকার কার্যকরি সভাপতি সুমিত রঞ্জন দাস, কাছাড় জেলার কার্যকরি সভাপতি টুটুল ভট্টাচার্য ও শিলচর নগর সাধারণ সম্পাদক সঞ্জীব নাথের বিশেষ উদ্যোগে , করোনার এই দুঃসময়ে চাউল,আলু, ভোজ্য তেল, সোয়াবিন, বিস্কুট, সহ বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রী বন্টন করা হয়। সম্পূর্ণ সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে, অত্যন্ত সুশৃংখলভাবে এই খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কর্মসূচি পালন করা হয়।এদিনের ত্রাণ বন্টন কর্মসূচি চলাকালীন সময়ে গৈরিক ভারতের পক্ষে কাছাড় জেলার কার্যকরি সভাপতি টুটুল ভট্টাচার্য, শিলচর নগর সভাপতি কানাই দেবনাথ, সদস্যা সুপ্তা ধর বলেন, এই সেবা কাজের মাধ্যমে যারা ত্রাণ সামগ্রী সংগ্রহ করেছেন তাদের কাছে গৈরিক ভারত কৃতজ্ঞ। যারা ত্রাণ সামগ্রী সংগ্রহ করেছেন তারা এই ত্রাণ সামগ্রী সংগ্রহ করে, পুণ্য অর্জনের সুযোগ করে দেওয়ার জন্য গৈরিক ভারতের কর্মকর্তারা তাদের কৃতজ্ঞতা জানান। আজকের এই ত্রাণ সামগ্রী বিতরণের সময় কাছাড় জেলার কার্যকরি সভাপতি টুটুল ভট্টাচার্য,শিলচর নগর সভাপতি কানাই দেবনাথ, শিলচর নগর সাধারণ সম্পাদক সঞ্জীব নাথ, বিপ্লব রায়, সুদীপ রবিদাস, গোবিন্দ সিং, সুপ্তা ধর সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

Continue Reading

North East

SPARKS MRS ASSAM শিরোপা অর্জন করলেন শিলচরের ঝনকা ঘোষ পাল

Published

on

যুব দর্পণ সাংস্কৃতিক প্রতিনিধি, ২৪ ফেব্রুয়ারি, শিলচর :: উত্তর পূর্বাঞ্চলের অন্যতম জনপ্রিয় ফ্যাশন শো ও প্রতিযোগিতা ” SPARK ” Miss, Mrs & Mr Assam এর MRS ASSAM এর শিরোপা অর্জন করলেন শিলচরের গৃহবধূ শ্রীমতি ঝানকা ঘোষ পাল।

স্পার্ক এর উদ্যোগে উত্তর পূর্বাঞ্চল সহ কলকাতা, দিল্লী সহ বিভিন্ন স্হানের কয়েক শতাধিক প্রতিযোগিদের অডিশনের মাধ্যম নির্বাচিত করে ১১ টি জোনে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয় এবং এই ১১ জন জোনের চ্যাম্পিয়নদের নিয়ে গত ১২ ফেব্রুয়ারি আই টি এ মাছখোয়াতে অনুষ্ঠিত হয় প্রতিযোগিতার মেগা ফাইনাল ।

উক্ত প্রতিযোগিতায় বরাক উপত্যকা জোন থেকে জয়ী হয়ে মেগা ফাইনালে নিজের দক্ষতা ও প্রতিভার স্বাক্ষর রেখে Mrs Assam এর শিরোপার সস্মান অর্জন করেন শিলচরের তরুণ নৃত্যশিল্পী ঝনকা ঘোষ পাল । Mrs Assam শিরোপা অর্জন করে শিলচরের সস্মান বাড়ানোর জন্য শ্রীমতি ঝনকা ঘোষ পাল কে বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন, বিশিষ্ট জনেরা উনার উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

Continue Reading

Trending